পুরাতন ব্যবসাতে কিভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং করবেন ।। digital marketing in traditional business

পুরাতন ব্যবসাতে কিভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং করবেন ।। digital marketing in traditional business


Posted on: 2020-03-17 15:30:55 | Posted by: eibbuy.com
পুরাতন ব্যবসাতে কিভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং করবেন ।। digital marketing in traditional business

মার্কেটিং হলো এমন একটি প্রক্রিয়া, যা দ্বারা বিভিন্নরকম কৌশল উন্নয়ন করে পরিবর্তনশীল বাজার ব্যবস্থায় প্রতিষ্ঠানের সম্পদ, সামর্থ্য ও অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে পরিবর্তনের মাধ্যমে মার্কেটে টিকে থাকার সামর্থ্য অর্জন করতে পারে। আজকাল মার্কেটিং করার নতুন নতুন কৌশল আবিষ্কার করা হয়েছে। ডিজিটাল যুগে মার্কেটিং নতুন রুপ নিয়েছে। গতানুগতিক মার্কেটিং কৌশল থেকে আমরা বের হয়ে আসছি। এখন মানুষ মার্কেটিং করার জন্য ডিজিটাল মিডিয়া গুলির উপর নির্ভর করে থাকে। কিছু ডিজিটাল মার্কেটিং যেমন  ওয়েবসাইট বানানো, ই-মেইল পাঠানো, টুইট করা, অ্যাড দেয়া, ল্যান্ডিং পেইজ বানানো, ব্লগিং করা ইত্যাদি।


আসলে ডিজিটাল মার্কেটিং করার মদ্যমে আপনি আপনার ব্যবসাকে আধুনিক ব্যবসার সাথে সংযোগ করে আপনার ব্যবসার বিক্রি বাড়াতে পারবেন, ব্যবসার প্রসার ঘটাতে পারবেন ক্রেতা বাড়াতে পারবেন। বাংলাদেশে এখন অনেকেই গতানুগতিক ব্যবসাকে ডিজিটাল মার্কেটিং করে পরবর্তী লেভেলে নিয়ে গিয়েছেন ।


কিভাবে শুরু করবেন পুরাতন ব্যবসার ডিজিটাল মার্কেটিং


মার্কেটিং আপনি তিনটি বিষয় মাথায় রেখে করতে হবে।

১। ব্যবসা  প্রসার

২।বিক্রি বাড়ানো

৩। মার্কেটে  টিকে থাকা ।


প্রথম ধাপ 

ডিজিটাল মার্কেটিং করার জন্য আপনাকে প্রথমেই একটা ফেসবুকে পেজ খুলতে হবে। এটা হলো ডিজিটাল মার্কেটিং করার শুরু। এবার পেজে সুন্দর করে আপনার প্রতিষ্ঠানের নাম, ঠিকানা, মোবাইল নাম্বার, কিছু ছবি, পণ্যের বিবরন দিয়ে দিন। আপনার পণ্য নিয়ে পেজে নিয়মিত আপডেট দেয়া শুরু করুন। এবার আপনার ফ্রেন্ড লিস্টে যত ফ্রেন্ড আছে তাদেরকে আপনার পেজে লাইক করতে বলুন। ডিজিটাল মার্কেটিং করার এই অংশে আপনি চাইলে আপনার পেজে আরও ভালো করে মার্কেটিং করার জন্য আপনি পেজ বুস্ট করতে পারবেন । আন্তর্জাতিক মাস্টার কার্ড থাকলে আপনি নিজেই পেজ বুস্ট করতে পারবেন। আপনি চাইলে কোন এজেন্ট কে দিয়ে পেজ বুস্ট করিয়ে নিতে পারবেন। ৫০০০ লাইক নিতে আপনি ২৫০০ টাকা খরচ করতে হবে।


দ্বিতীয় ধাপ

ফেসবুকের পর আপনার কাজ হলো একটা ইউটিউব চ্যানেল খোলা । বর্তমানে ডিজিটাল মার্কেটিং করার জন্য ইউটিউব একটি অন্যতম মাধ্যম। সোশ্যাল মিডিয়া গুলির মধ্যে ইউটিউব অনেক শক্তিশালী একটা মাধ্যম । আজকাল অনেকেই ইউটিউবে পণ্যের রিভিও দিয়ে অনেক ভালো পরিমাণে আয় করতেছেন এবং ব্যবসার প্রসার করতেছে। আপনার যেহেতু আগে থেকেই ব্যবসাটি ভালো করে জানা শুনা কিন্তু নতুন করে মার্কেটিং করতে আপনার জন্য ভালো হবে।


তৃতীয় ধাপ

এই ধাপে আপনি একটি ওয়েবসাইট বানানো শুরু করতে পারেন। এটা গতানুগতিক ব্যবসার নেক্সট লেভেলের মার্কেটিং । আপনি চাইলে আপনার ব্যবসার জন্য অল্প খরছে একটি ওয়েবসাইট বানাতে পারেন। ওয়েবসাইটে আপনি দুই ধরনের কাজ করতে পারবেন। একটা হলো আপনি হয়তো সেখানে পণ্য ডিসপ্লে করতে পারেন অথবা পণ্য বিক্রিও করতে পারেন। এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি সারা দেশ থেকে আপনার কাস্টমার পাবেন । দোকানের জন্য ওয়েবসাইট বানাতে আপনাকে ১০-১৫ হাজার টাকা খরচ করতে হবে। 


চতুর্থ ধাপ 

এই ধাপে মার্কেটিং করতে আপনাকে ব্যবসার অ্যাড দেয়া লাগবে। ডিজিটাল মার্কেটিং করতে আপনাকে ফেসবুকে, ইউটিউবে, ওয়েবসাইটে অ্যাড দিতে হবে। এজন্য আপনি একটা টাকা বাজেট করতে হবে। যেমন আপনি যদি আপনার দোকানে একজন মার্কেটিং কর্মী রাখেন তবে তাকেও কিন্তু প্রতি মাসে আপনাকে একটা পরিমাণ পে করতে হবে। আপনি ধরে নিন আপনার এই মার্কেটিং খরচ টা একজন কর্মীর প্রতি মাসের খরচ । 



Related Post

জনপ্রিয় পণ্য

সাম্প্রতিক পণ্য

Leave a Comment:

Comment as:

alibaba & Import Export expert

সি এন্ড এফ, আমদানি, আলিবাবা নিয়ে যেকোনো সমস্যায় আমাকে ফেসবুকে মেসেজ করুন

এখানে ক্লিক করুন
2017 © 2022 eibbuy. All Rights Reserved.
Developed By Takwasoft