বাংলাদেশ থেকে সহজে গার্মেন্টস বায়ার পাওয়ার উপায়

বাংলাদেশ থেকে সহজে গার্মেন্টস বায়ার পাওয়ার উপায়


Posted on: 2020-12-05 16:33:11 | Posted by: Shafiullah

গার্মেন্টস বায়ার পাওয়ার উপায় জানা থাকলে, সহজে বায়ার পাওয়া সম্ভব। গার্মেন্টসের বায়ার পাওয়া এখন বেশ প্রতিযোগিতা পূর্ণ। তাই, গার্মেন্টস বায়ার পাওয়ার জন্য কিছু কৌশল অবলম্বন করা জরুরি। গার্মেন্টস বায়ার লিস্ট থেকে বায়ার পাওয়া যায়। কিন্তু মনে রাখবেন, গার্মেন্টস বায়ার পাওয়ার সবচেয়ে বড় কৌশল বায়ারদের ভাল কিছু অফার করা।

গার্মেন্টসের ক্ষেত্রে ইউরোপিয়ান বায়ার অনেক বেশি। তবে, ইউরোপ হউক বা আমেরিকা, বায়ার পাওয়ার উপায় জানা না থাকলে, কোন দেশের বায়ার পাওয়াই সম্ভব না।

আমরা আজকে কিছু বায়িং হাউজের মালিকাদের বায়ার পাওয়ার টেকনিকগুলো আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। বায়ার খোঁজার ক্ষেত্রে প্রত্যেকের গোপন কিছু কৌশল থাকে। আজকে আমরা সহজে গার্মেন্টস বায়ার পাওয়ার ১০টি উপায় আলোচনা করবো।
গার্মেন্টস বায়ার পাওয়ার উপায়

গার্মেন্টস বায়ার পাওয়ার জন্য অবশ্যই একটি বায়িং হাউজ থাকলে ভাল। এটা, আপনার প্রতি বায়ারের বিশ্বাস এবং আস্থা বৃদ্ধি করে। পড়তে পারেন, গার্মেন্টস বায়িং হাউস কি? কিভাবে গার্মেন্টস বায়িং হাউস ব্যবসা শুরু করবেন?
১. ইউনিক এবং ভাল কিছু অফার করুন

গার্মেন্টসের বায়ার পাওয়া বেশ প্রতিযোগিতা পূর্ণ। আর এই প্রতিযোগিতা পূর্ণ বাজারে গার্মেন্টস বায়ার পাওয়ার সহজ কৌশল হল, বায়ারকে অন্যদের থেকে আলাদা এবং ভাল কিছু অফার করা। কিছু জিনিস আছে যা অবশ্যই দিতে হবে। যেমন:

    পণ্যের গুণগত মান ঠিক রাখা।
    সঠিক সময়ে পণ্য ডেলিভারি দেয়া।
    পণ্যের নিরাপত্তা ও নিশ্চয়তা।
    পোশাকে ক্যামিকেলের স্বাস্থ্যকর মাত্রা।

২. কোম্পানি ওয়েবসাইট তৈরি

বর্তমান সময়ে কোন বায়িং হাউজের ওয়েবসাইট নাই, এটা চিন্তা করাও ভুল। আপনার কোম্পানির সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা পাওয়া যাবে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। কারণ, ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি আপনার সাম্প্রতিক বায়ার এবং কাজ দেখাতে পারেন। এছাড়া, আপনার কর্মী ও কোম্পানির শর্ট প্রোফাইলও দেখাতে পারেন।

ওয়েবসাইট থাকার মাধ্যমে আপনার প্রোফেশনালিজমের প্রথম ছাপ ফুটে উঠে। আর একটি ভাল ওয়েবসাইটের দ্বারা আপনি অন্যান্য বায়িং হাউজ থেকে এগিয়ে থাকলেন।

কোম্পানির ওয়েবসাইট তৈরি করতে খুব বেশি খরচ হয় না। বাংলাদেশে বসে আপনি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। কোম্পানির ওয়েবসাইট তৈরির জন্য, আপনি চাইলে Omar Faruk এই ওয়েব ডেভেলপারের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।
৩. ডিজিটাল মার্কেটিং

বর্তমান সময়ে প্রতিটি বড় বড় ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে ছোট ছোট কোম্পানিও ডিজিটাল মার্কেটিং করে। ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে কম সময়ে এবং স্বল্প খরচে বায়ার পাবেন। যেহেতু ইতোপূর্বে আপনার ওয়েবসাইট রয়েছে। তাই, এই ওয়েবসাইট বায়ারদের নিকট পৌঁছানোর জন্য হলেও ডিজিটাল মার্কেটিং করা লাগবে।
গার্মেন্টস বায়ার পাওয়ার উপায়

জনপ্রিয় কিছু ডিজিটাল মার্কেটিং পদ্ধতি
স্যোশাল মিডিয়া মার্কেটিং

ইউরোপের অধিকাংশ বায়ার যোগাযোগের সর্বাধিক সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম হল লিংকডইন। আপনার যদি এখনও লিংকডইন প্রোফাইল না থাকে তবে, এখনই খুলে নিন। লিংকডইনে নিয়মিত আর্টিকেল, ভিডিও পোস্ট করতে পারেন বা সরাসরি সম্ভাব্য বায়ারদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। ‘sourcing’, ‘apparel’, ‘design’, ‘fashion’ এই টাইপ শব্দ সার্চ বা ট্যাগ ব্যবহার করে গ্রুপে জয়েন করতে পারেন। এছাড়া, ফেসবুক পেজ খুলে রাখতে পারেন।
সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন

অনেক বিদেশি বায়ার আছে গুগলে সাপ্লাইয়ার খুঁজে। এখন, আপনার ওয়েবসাইট যদি গুগলের প্রথমে চলে আসে তাহলে, খুব সহজে বায়ার আকর্ষণ করতে পারবেন।
বিজ্ঞাপন দিন

ফেসবুক, গুগল কিংবা অন্যকোন ডিজিটাল মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন। এর ফলে সরাসরি বায়ারের সাথে ইন্টার‍্যাকশন হবে। এছাড়া, বিদেশী ম্যাগাজিন বা বায়ারদের সাথে সম্পর্কযুক্ত এমন জায়গাগুলোতে অ্যাড তথা বিজ্ঞাপন দিন।
৪. বায়ার ডাটাবেস ওয়েবসাইট

অনেক ওয়েবসাইটে আপনি বিদেশি বায়ারদের নাম ও বিস্তারিত পাবেন। নিচের ওয়েবসাইটতে পাবেন:

    Retail-Index

আবার কিছু ওয়েবসাইট আছে যেখানে বায়াররা রিকোয়েস্ট করে। মানে, এখানে বায়ার সরাসরি আপনাকে ম্যাসেজ করবে পণ্যের জন্য। অর্থাৎ, আপনার জন্য এটা অনেক বড় সুযোগ বায়ার পাওয়ার। তবে, কিছু কিছু ওয়েবসাইটে সাইন আপ করার জন্য টাকা দিতে হবে।

    Alibaba
    Foursource
    Fibre2Fashion Marketplace
    Sewport
    Indiamart
    Apparel Buyer Contact

৫. বাণিজ্য মেলায় যোগ দিন

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মেলাগুলোতে যোগ দিন। এতে করে আপনার কোম্পানির প্রচার প্রসার ঘটবে। এছাড়া, এর ফলে আপনি সরাসরি বায়ারও পেতে পারেন। বাণিজ্য মেলে থেকে যদি কোন বায়ারের সাথে কানেক্ট। তাহলে, মেলা শেষে অবশ্যই তাদের সাথে যোগাযোগ করবেন। বাংলাদেশে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা হয়। এছাড়া, বিভিন্ন দেশেও বাণিজ্য মেলা হয়। যেমন:

    Première Vision
    Texworld
    Munich Fabric Start
    ILM
    Pitti Filati
    APLF
    Apparel Sourcing
    Interfilière
    ISPO
    A&A
    ACLE
    AFSW

৬. সহযোগী সংগঠনগুলোর সাথে সম্পর্ক তৈরি করুন

গার্মেন্টস ভিত্তিক বিভিন্ন সংগঠনগুলোর সাথে যোগাযোগ রাখুন। তাদের, নিকট থেকে গার্মেন্টস বায়ারের খবর নিন। অনেক সংগঠনের সাথে বায়ারদের সম্পর্ক থাকে। ফলে, বায়ার পাওয়ার আপনার জন্য সহজ হয়ে যাবে।
শেষ কথা

এই ছিল আজকে গার্মেন্টস বায়ার পাওয়ার উপায়। গার্মেন্টসের পণ্য বিদেশে রপ্তানি করার আরও অনেক সহজ উপায় রয়েছে। সেসব উপায় মূলত আপনি কাজের সাথে থাকতে থাকতে জানতে পারবেন।


জনপ্রিয় পণ্য

সাম্প্রতিক পণ্য

Leave a Comment:

Comment as:

alibaba & Import Export expert

সি এন্ড এফ, আমদানি, আলিবাবা নিয়ে যেকোনো সমস্যায় আমাকে ফেসবুকে মেসেজ করুন

এখানে ক্লিক করুন
© 2021 eibbuy. All Rights Reserved.
Developed By Takwasoft